আন্তর্জাতিকলিড নিউজ

নিহতের সংখ্যা ৪৫ হাজার ছাড়াল

তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পের আজ ১২ দিন হতে চললো। এখন পর্যন্ত ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে ৪৫ হাজার ৪৭২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে শুধু তুরস্কেই নিহত হয়েছে ৩৯ হাজার ৬৭২ জন। আর সিরিয়া সরকার ও দেশটিতে জাতিসংঘের দপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, সিরিয়ায় মৃত মানুষের সংখ্যা ৫ হাজার ৮০০।

শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে।

তুরস্কের হাতায় এলাকায় উদ্ধারকর্মীরা ভূমিকম্পের ১২ দিন পর ৪৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে ধ্বংসস্তূপ থেকে জীবিত উদ্ধার করেছেন।

তুরস্কে এখন তীব্র ঠান্ডা, মাঝে মাঝে চলছে শৈতপ্রবাহও। তার মধ্যেই চলছে উদ্ধারকাজ। গত কয়েক দিনে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার হওয়া মানুষদের সংখ্যা হাতেগোনা। বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার মিলিয়ে মোট তিনজনকে উদ্ধার করা হয়েছে, যার মধ্যে এক ১৪ বছর বয়সী কিশোরও রয়েছে। তবে এখনও হাল ছাড়তে রাজি নন উদ্ধারকাজে থাকা উদ্ধারকারীরা।

গত ৯ ফেব্রুয়ারির পর থেকে এখন পর্যন্ত ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ১৭৮টি ট্রাক তুরস্ক থেকে সিরিয়ার ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় গিয়েছে।এছাড়াও, তুরস্কে আশ্রয় নেওয়া সিরীয়দের মধ্যে ভূমিকম্পে নিহত ১ হাজার ৫২২ জনকে দাফনের জন্য নিজ দেশে পাঠানো হয়েছে।

ভয়াবহ এই ভূমিকম্পে দুই দেশের ৪০ হাজারের বেশি ভবন ধসে পড়েছে। বিভিন্ন দেশের উদ্ধারকর্মীসহ বর্তমানে আড়াই লাখের বেশি কর্মী মাঠে কাজ করছে। অলৌকিকভাবে ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে এখনও জীবিত প্রাণ খুঁজে পাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা।

ভূমিকম্পটিকে গত ১০০ বছরের মধ্যে তুরস্কের সবচেয়ে ভয়াবহ দুর্যোগ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে ২ কোটি ৬০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ অবস্থায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য ১০০ কোটি ডলার সহায়তা চেয়েছে জাতিসংঘ।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরের দিকে সিরিয়া এবং তুরস্কে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। এর কিছুক্ষণ পর ফের ৬ দশমিক ৭ মাত্রার আরও একটি ভূমিকম্প। ১৯৩৯ সালে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পে তুরস্কের পূর্ব এরজিনকান প্রদেশে ৩৩ হাজার মানুষ নিহত হয়েছিল।

এমন আরও সংবাদ

Back to top button