এক্সক্লুসিভ স্বাস্থ্য বুলেটিনজাতীয়

কোভিডে আরো ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৫৩১, সুস্থ ১০৮৪

এক্সক্লুসিভ নিউজ ডেস্ক: রোববার (২১ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, কোভিড-১৯ এ মোট মারা গেছেন ১৪৬৪ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ১২ হাজার ৩০৬ জন। মৃত্যুদের পুরুষ ৩৫ জন এবং নারী ৪ জন। ঢাকা বিভাগে ১৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১১ জন, রাজশাহী বিভাগে ২ জন, খুলনা বিভাগে ৪ জন, বরিশাল বিভাগে ৪ জন,সিলেট বিভাগে ১ জন এবং রংপুর বিভাগে ১ জন মৃত্যুবরণ করেছে। তাদের মধ্যে হাসপাতালে ৩৩ জন এবং বাসায় ৬ জন মারা গেছে। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩০ শতাংশ।

বয়স বিশ্লেষণে করে তিনি বলেন, ‘০ থেকে ১০ বছরের মধ্যে ১ জন, ২১ থেকে ৩০ বছর ১ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর ৬ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর ১২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছর ১২ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছর ৪ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছর ২ জন এবং ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে ১ জন মারা গেছে।’

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫৭১০ জনের। পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫৫৮৫ জনের। মোট পরীক্ষা করা হয়েছে ৬ লাখ ১২ হাজার ১৬৪ জনের। শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১০৮৪ জন, মোট সুস্থ হয়েছেন ৪৫০৭৭ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২২ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনের নেওয়া হয়েছে ৬৩১ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনের আছেন ১৯ হাজার ৮১৪ জন। এছাড়া আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৩৫৬ জন, এ পর্যন্ত মোট ছাড় পেয়েছেন ৭ হাজার ৬২৪ জন। বর্তমানে মোট আইসোলেশনে আছেন ১২ হাজার ১৯০ জন।

বুলেটিনে ডা. নাসিমা সুলতানা বরাবরের মতো করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে সবাইকে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মুখে মাস্ক পরা এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। আর গত ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর থেকে দিনে দিনে এর সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।

এমন আরও সংবাদ

Back to top button
Close
Close